Sunday, July 14, 2024
টেক নিউজরিভিউ

রেডমি নোট ১২ প্রো | রেডমি নোট ১২ প্রো প্রাইস ইন বাংলাদেশ

স্মার্টফোন বর্তমানে আমাদের দৈনন্দিন জীবনের এvমন একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশে পরিণত হয়েছে যে, দিনের শুরু থেকে শেষের বিভিন্ন কাজেই আমাদের স্মার্টফোন ব্যবহার করতে হয়। মানুষের এই প্রয়োজনীয়তা এবং জনপ্রিয়তাকে লক্ষ্য করে স্মার্টফোন প্রতিষ্ঠান গুলোও প্রতিনিয়তই আকর্ষণীয় সব ফিচার্স এবং গুণগত মান সম্পন্ন স্মার্টফোন বাজারে আনছে। তেমনই একটি স্মার্টফোন প্রতিষ্ঠান হলো শাওমি যা নিত্যই চমৎকার সব মোবাইল ফোন লঞ্চ(Launch) করছে। খুব শিগগিরই বিশ্বজুড়ে লঞ্চ হতে যাওয়া শাওমির একটি স্মার্টফোন হলো রেডমি নোট ১২ প্রো। আজকে আমরা রেডমি নোট ১২ প্রো, রেডমি নোট ১২ প্রো প্রাইস ইন বাংলাদেশ ইত্যাদি বিষয়গুলো সম্পর্কে জানবো।

অবশ্যই পড়বেনdiamante dorado site regarder match de foot stanza con idromassaggio billi bi bottines entropia skill scanner bodysol duschgel kaufen jouetbois שיווי משקל באסטרטגיות מעורבות nike air jordan 11 concord reis kochen mit salz עמדת משקולות סטנד origen de las cortes de los reinos cristianos adidas predator sprinter nike blazer mid rosa עמדת משקולות סטנד 

রেডমি 10C বাংলাদেশ প্রাইস

রেডমি ৯ বাংলাদেশ প্রাইস

১০-১২ হাজার টাকার মোবাইল

15000 হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন

রেডমি নোট ১২ প্রো

রেডমি নোট ১২ প্রো

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা সবসময় অপেক্ষা করেন কখন বাজারে নতুন স্মার্টফোন লঞ্চ হবে। লঞ্চ হওয়ার আগেই তারা ঐ স্মার্টফোনটির ফিচার, প্রাইস ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে জেনে রাখতে চান যাতে লঞ্চ হওয়া মাত্রই তারা তাদের পছন্দের মোবাইলটি কিনতে পারেন। রেডমি নোট ১২ প্রো প্রাইস ইন বাংলাদেশ সম্পর্কে জানার আগে আমাদেরকে মোবাইলটির ব্যাপারে আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় জানা দরকার।

রেডমি নোট ১২ প্রো প্রথমে এই বছরের শুরুতে লঞ্চ হওয়ার কথা থাকলেও বিভিন্ন কারণেই তা আর হয় নি। তবে আশা করা যাচ্ছে, আগামী নভেম্বরের মধ্যেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাধ্যমে মোবাইলটি বিশ্বব্যাপী লঞ্চ করা হবে। তার কয়েক মাসের মধ্যেই হয়তো মোবাইলটি পুরো বিশ্ব জুড়েই পাওয়া যাবে। এখন চলুন আমরা রেডমি নোট ১২ প্রো এর স্পেসিফিকেশনসগুলো(Specifications) জেনে নি।

  • এর বডি ডাইমেনশন হচ্ছে ১৬৪.৫×৭৬.২×৮.১ মি.মি(৬.৪৮×৩.০০×০.৩২ ইঞ্চি)।
  • এটি খুবই হালকা একটি ডিভাইস যার ওজন মাত্র ১৯২ গ্রাম। অর্থাৎ, এটি সহজেই বহনযোগ্য।
  • ৬.৬৭” Super AMOLED ডিসপ্লে। ডিসপ্লে রেজুলেশন হচ্ছে ১০৮০×২৪০০ পিক্সেলস। 
  • Corning Gorilla Glass 5 প্রটেকশন লেয়ার।
  • ২জি,৩জি,৪জি নেটওয়ার্ক সমর্থনযোগ্য।
  • Colour Version : Glacial Blue, Vintage Bronze, Dark Night। 
  • ডুয়েল সিম ব্যবহারযোগ্য (ন্যানো সিম, ডুয়েল স্ট্যান্ড-বাই)।
  • দুর্দান্ত ক্যামেরা পারফরম্যান্স, ১০৮ মেগাপিক্সেল(Wide)+৮ মেগাপিক্সেল(Ultrawide)+৫ মেগাপিক্সেল(Macro)+২ মেগাপিক্সেল(Depth) ব্যাক ক্যামেরা। সাথে থাকছে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।
  • অপারেটিং সিস্টেম Android 11, MIUI 12।
  • Qualcomm SM7150 Snapdragon 732G চিপসেট, Octa-Core CPU, Adreno 618 GPU। 
  • ৬জিবি/৮জিবি RAM এবং ৬৪জিবি/১২৮ জিবি ROM। 
  • ৫০২০ mAh লিথিয়াম-পলিমার নন-রিমুভেবল ব্যাটারি। 
  • Fast Charging 33W, ৩০ মিনিটের মধ্যে ৬০% এবং ৭৫ মিনিটের মধ্যে মোবাইল ১০০% চার্জড হবে। 
  • বিভিন্ন রকম সেন্সর রয়েছে, যেমন :
  1. ফিঙ্গারপ্রিন্ট(Side-Mounted)
  2. এক্সেলেরোমিটার(Accelerometer)
  3. গায়রো(Gyro)
  4. কম্পাস(Compass)
  5. প্রক্সিমিটি(Proximity) ইত্যাদি।
  • কানেক্টিভিটির জন্য রয়েছে : 
  1. WLAN : ওয়াইফাই 802.11 a/b/g/n/ac, ডুয়েল ব্যান্ড, ওয়াইফাই ডিরেক্ট, হটস্পট
  2. ব্লুটুথ : v5.1
  3. USB : Type-C 2.0 
  4. GPS : A-GPS, GLONASS, GALILEO, BDS
  5. ৩.৫ মি.মি হ্যাডফোন জ্যাক।

রেডমি নোট ১২ প্রো প্রাইস ইন বাংলাদেশ

রেডমি নোট ১২ প্রো প্রাইস ইন বাংলাদেশ

যেহেতু রেডমি নোট ১২ প্রো এখনো বাংলাদেশ তথা বিশ্বের কোথাও লঞ্চ হয়নি, তাই রেডমি নোট ১২ প্রো প্রাইস ইন বাংলাদেশ কেমন হবে তা অনুমান করা কিছুটা কঠিন। বিশ্বব্যাপী লঞ্চ হওয়ার পরই তা মোটামুটি আন্দাজ করা যাবে। তবে ধারণা করা হচ্ছে, ২৬ হাজার টাকা থেকে ৪০ হাজার টাকার মধ্যে মোবাইলটির সবগুলো ভার্সন পাওয়া যাবে।

যেহেতু মোবাইলটি লঞ্চ হওয়ার পর বাংলাদেশে আসতে কিছুটা সময় লাগবে, তাই এর আগে মোবাইলটি পেতে হলে আপনাকে হয়তো বিশ্বের অন্য কোনো দেশ থেকে তা আনাতে হতে পারে। সেই দেশে মোবাইলটির মূল্য কেমন তার উপর নির্ভর করছে বাংলাদেশী টাকায় এর মূল্য কত হবে। তাছাড়া, আপনি অফিসিয়াল ভার্সন কিনছেন নাকি আনঅফিসিয়াল তার উপরও মোবাইলের দাম নির্ভর করছে৷ তবে আশা করা যায় দামের খুব বেশি হেরফের হবেনা, আমাদের আনুমিত মাত্রার মধ্যেই থাকবে।

পরিশিষ্ট

রেডমি নোট ১২ প্রো, রেডমি নোট ১২ প্রো প্রাইস ইন বাংলাদেশ কেমন হতে পারে, তা সম্পর্কে আমরা জানলাম। লঞ্চ হওয়ার আগেই এটি যে পরিমাণ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে, তাতে সহজেই অনুমেয় যে মানুষ মোবাইলটির জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। অসাধারণ সব ফিচার সম্বলিত এই স্মার্টফোনটি যদি আপনার পছন্দের তালিকায় থেকে থাকে, তাহলে আশা করা যায় আপনাকে আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবেনা, খুব তাড়াতাড়িই এটি বাজারে লঞ্চ হবে।

তৌহিদ

ABOUT TOUHID

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *